Paid-by-bdcricinfo

তামিম বিশ্বকাপে ফিরবে, নাজমুল

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন


বিশ্বকাপে মতো এতো বড় ধরনের মঞ্চ মাথায় রেখে তামিম ইকবালকে দলে ফেরানোর উচিত ছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি)। কিন্তু বাংলাদেশের ক্রিকেটে তামিম ইকবালকে ফিরানোর কোন উদ্যোগ না দেখতে পাওয়ায় বরং বিস্মিত হয়েছে ক্রিকেট কোচ ও বিশ্লেষণ নাজমুল আবেদীন ফাহিম। 

আরও পড়ুনঃ- এভারেস্ট প্রিমিয়ার লীগ খেলতে নেপালে তামিম

আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে বসবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। তার আগেই বাংলাদেশকে দুঃসংবাদ শোনালেন তামিম ইকবাল, আসন্ন এই বিশ্বকাপ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন বাংলাদেশের সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। তামিমকে নিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল চূড়ান্তই করে ফেলেছিলেন বিসিবির নির্বাচকেরা। বিসিবির পরিচালনা পযার্য়ের সভা শেষেই ঘোষণা হয়ে যাওয়ার কথা ছিল সেটি টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাংলাদেশ স্কোয়াড। কিন্তু তার আগেই যে তামিম ইকবাল ঘোষণা দিয়ে দিয়েছেন, তিনি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলবেন না।


তামিম ইকবাল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেন নিজের ফেসবুক ভিডিও বার্তায় "আমার মনে হয় না আমার বিশ্বকাপে থাকা উচিত"- বলেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। নিজের ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও বার্তায় তিনি জানিয়েছেন যে তিনি আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলবেন না।


এর আগে তামিমকে তিন দলের সিরিজে বাহির ছিল সেই দল গুলো হলো, জিম্বাবুয়ে, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়ার। তামিম ছুটের কারনে খেলতে পারেনি সিরিজ গুলো। বিসিবি জানায় তারা তামিমকে বিশ্বকাপের স্কোয়াডে রেখেছিল কিন্তু শেষ দিকে গিয়ে নিজই সরে গেলো বিশ্বাকাপ থেকে ভিডিও র্বাতাই লাইভে এসে বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবাল নিজেই বিশ্বকাপের দল থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। আসন্ন টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ তামিম খেলবে না বলে জানায়। 


তিনি আরও বলেন,


সম্ভবত আপনারা আমাকে বিশ্বকাপে দেখবেন না। আমি এতটুকু বলতে পারি যে, আই উইশ অল দ্য বেস্ট ফর দ্য টিম ফর দিস সিরিজ অ্যান্ড ওয়ার্ল্ড কাপ। আমি একটা বিষয় পরিষ্কার করে দিই। আমি কিন্তু অবসর নিচ্ছি না। বাট হয়তো বিশ্বকাপটা আমার খেলা হবে না।


তামিম এত বড় সিদ্ধান্ত একএকা কখনো নিতে পারবে না। তামিম এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে বাংলাদেশের ক্রিকেট বোর্ডের ( বিসিবি) প্রধান নাজমুল হাসান পাপনে সাথে কথা বলেছে। 

পাপন জানায়, 

" তামিম এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সব কিছু আমার সাথে আলাপ করে নিয়েছে। তাহলে সেই খানে আমি কি করে বলবো আবার ফিরে আসতে„


টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরের দিন তামিম কেন শেষ পর্যন্ত চূড়ান্ত স্কোয়াডে নেই সেই  সর্ম্পকে বলে নাজমুল  হাসান পাপন। কিন্তু বিশ্লেষকদের মতে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মতো এতো বড় মঞ্চে ব্যাপারটি মাথায় রেখে বাংলাদেশের সেরা ওপেনার ও অভিজ্ঞ প্লেয়ার বিচার বিশ্লেষণ করে তামিকে দলে ফেরানোর উচিত ছিলো।  কিন্তু বিসিবি এমন না করায় বিস্মিত পোষণ করেছে কোচ নাজমুল আবেদীন ফাহিম। 


কোচ ও ক্রিকেট বিশ্লেষক ফাহিম আরও বলে,

“এটা আমার কাছে খুবি অভাগ লেগেছে, তামিম তো অটোমেটিক চয়েস, মানে সে একটি মুল্য ভান প্লেয়ার, কিন্তু তেমন ভাবে কাউে দেখিনি যে বলবে তুমি আবার খেলো„


বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি সর্বোচ রানের  ব্যাটসম্যানদের তালিকায় তামিম তৃতীয়  স্থানে তাকলেও এক নাম্বারে থাকা মাহমুদউল্লাহ ও দুই নাম্বারে থাকা সাকিব এর থেকে কম ম্যাচ খেলায় তামিম এর স্ট্রাইকরেট ও গড় সব থেকে ভালো।  তাই বিশ্বকাপের মত বড় মঞ্চে কতটা আস্থা রাখতে পারবে লিটন,সৌম ও নাঈমরা সেই উত্তর  সবাই দেখতে  চায়।


তামিমকে ছাড়া কেমন হবে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ওপেনিং জুটি। লিটন নাঈম কি সেরা জুটি করতে পারবে।  নাকি একে অপরের ভুলে ভেঙ্গে যাবে জুটি। 

নাজমুল আবেদীন ফাহিম আরও জানায়,

“তিন জনের যে ওপেনিং ফ্রমটা যদিও নাঈম শেখ রান করছে কিন্তু তিনি ওপেনিং এর জন্য কতটুকু উপযোগী এই ফ্রর্ম নিয়ে আমি চিন্তিত। এইযে সময়টা বাকি আছে তারা কতটুকু ফিরে আসতে পারবে এটা নিয়ে আমি চিন্তিত আধুও কি তারা ফিরে আসতে পারবে। শু তামিমের মত এত অভিজ্ঞ খেলোয়াড় তার পক্ষে খুব তারা তারি এত বড় ফ্রমে ফিরে আসাটা সহজ ছিল, কারন যারা নতুন তাদের জন্য পারফর্ম করাটা কঠিন হবে „

নাঈম এর বাংলাদেশ অভিষেক হবার পর এবার প্রথম কোনো বিশ্বকাপ তামিমকে ছাড়া খেলবে টাইগাররা। তামিমকে ছাড়া কেমন হবে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বার্ছাইপর্ব। টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে উদ্ভোদন ম্যাচে (১৭ অক্টোবর) বাংলাদেশ প্রথম মাঠে নামবে স্কটল্যান্ড এর বিপক্ষে, তখনি দেখা যাবে তামিমের কতটুকু অভাব বাংলাদেশের জন্য।

Related Posts

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন